জামালপুরের দেওয়ানগঞ্জ উপজেলায় সম্প্রতি ঘটে যাওয়া অন্যায়-অনিয়ম ও দুর্নীতির প্রতিবাদ জানিয়ে এক মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভার আয়োজন করে দেওয়ানগঞ্জ নাগরিক কমিটি।গতকাল রবিবার (২ জুন) দুপুর ১২ টায় দেওয়ানগঞ্জ মডেল থানা চত্বরে।

নাগরিক কমিটির আহবায়ক মো. রুহুল আমিন হারুন, যুগ্ন আহবায় মো.খাদিমুল ইসলাম অলিদ,  মো.জাহিদ হাসান পিকুল, মো.ফজলুল হক,সদস্য সচিব মো শামছুল হুদা রতন সম্মানিত সদস্য মাহমুদুল হক জাহিদ, নুর ই এলাহী, মোহাম্মদ আজাদ হোসেন, ওমর আল বশীর সহ শতাধিক নাগরিক উপস্থিত ছিলেন ।  
দেওয়ানগঞ্জের নাগরিকদের অধিকার সমুন্নত রাখতে দেওয়ানগঞ্জ উপজেলা প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষণ করে বারো দফা লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন কমিটির সদস্য সচিব মো. শামছুল হুদা রতন।   উপজেলায় সরকারি দপ্তরে সেবা গ্রহীতাদের অবাধ প্রবেশ নিশ্চিত করতে হবে। সরকারি দপ্তরের বারান্দায় ঘন্টার পর ঘন্টা সেবা গ্রহীতাদের বসিয়ে রেখে অফিস করা চলবে না।উপজেলার সরকারি দপ্তরে আনসার পাহারা বসিয়ে দরজা বন্ধ করে অফিস করা চলবে না। ষষ্ঠ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে নির্বাচনী বরাদ্দ হতে পরিবহন চালকদের টাকা কেনো আত্মসাৎ করা হলো? নির্বাচনকালীন সময়ে নির্বাচনী দায়িত্বে নিয়োগকৃত কর্মকর্তাদের হতে ঘুষ বাণিজ্য বন্ধ করতে হবে। উপজেলার ফসলি জমি রক্ষায় টপ সোয়েল ব্যবসা বন্ধ করা করতে হবে। গত ছয় মাসে অবৈধ বালু মহলে কোন ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করা হয়নি কেন? রেল স্টেশনের টিকিট কালোবাজারিদের দৌরাত্মা বন্ধ করতে হবে।গণমাধ্যম কর্মীদের তথ্য প্রদানে হয়রানি করা হয় কেন? ইউএনও অফিসের ডাক ফাইলে তথ্যপ্রাপ্তির আবেদন রিসিভ করতে টালবাহানা কেন? সরকারি অফিসে দুপুর বারোটায় আসা আড়াইটাই অফিস থেকে বের হওয়া বন্ধ করতে হবে। খারিজ কাটতে সরকারি ফি ছাড়া অতিরিক্ত টাকা আদায় বন্ধ করতে হবে। 

 

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ